ধামরাইয়ে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা

84

মোঃ মামুন রেজা, ধামরাই উপজেলা: ঢাকার ধামরাইয়ে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে উপজেলার শাখার উদ্দ্যেগে ঢাকা আরিচা মহাসড়কের যানজটমুক্তর আলোচনা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।পথ যেন হয় শান্তির, মৃত্যুর নয়’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে দেশব্যাপী ক্রমবর্ধমান সড়ক দুর্ঘটনা নিরসনে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টির প্রয়োজনে এবং কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবিতে ১৯৯৩ সালে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের নেতৃত্বে গঠিত হয় ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ (নিসচা) শীর্ষক একটি সংগঠনের৷তারই ধারাবাহিকতায় আজ সোমবার (২২অক্টোবর) বেলা ৩ ঘটিকার সময় ধামরাই পৌর-সভার ঢুলিভিটা ও ইসলামপুর ঢাকা আরিচা মহাসড়কে এই মতবিনিময় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নিরাপদ সড়ক চাই কমিটির ব্যানারের কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন সংগঠন ও সাধারণ মানুষসহ রাজনৈতিক ব্যাক্তিরা অংশ নেয়।এই সময় রাস্তাদিয়ে চলাকালে প্রায় ৫ শতাধিক মানুষ ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে দাড়িয়ে যানজটের তীব্র প্রতিবাদ জানায়। এসময় তারা ঢুলিভিটা স্ট্যান্ডে একটি ওভার ব্রিজের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানায়।

এই সময় নিরাপদ সড়ক চাই ধামরাই উপজেলা শাখার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ নাহিদ মিয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, ধামরাই সুযোগ্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবুল কালাম আজাদ,প্রধান আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা, উদ্ধোধক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ধামরাই ডি-লিংক পরিবহনের চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম রতন, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নয়ারহাট শাখার উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সওজ মোঃ আতিকুল্লাহ ভুঞা, ধামরাই উপজেলা আওয়ামী-লীগের সদস্য ও ঢাকা জেলার সাবেক কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ শফিক আনোয়ার হোসেন গুলশান, নিরাপদ সড়ক চাই এর আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মোঃ আবুল কালাম, ধামরাই থানার সদর ইউপি চেযারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী-লীগের সভাপতি মোঃ সাহাবুদ্দিন, প্রথমআলো পত্রিকার সাব এ্যাডিটর মাহমুদ ইকবাল, আফাজুদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, কমিশনার মোহাম্মদ আলী পৌর-কমিশনার আমজাদসহ ছাত্রলীগ যুবলীগের সকল সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এই সময় ধামরাই নিরাপদ সড়ক চাই কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু রিফাত জাহান প্রেমন এর সঞ্চালনায় নিরাপদ সড়ক চাই স্বাগতম বক্তব্য রাখেন, ধামরাই ইপজেলা কমিটির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ দেওয়ান নজরুল ইসলাম বলেন,ঢাকা আরিচা মহাসড়কটি গুরুত্বপুর্ণ একটি সড়ক, এই সড়কে আর বেশি পরিমানে ফুটওভার ব্রিজ,সড়ক ডিভাইডার-সহ ট্রাফিক পুলিশের খুবই প্রয়োজন। এ ছাড়া ইসলামপুর ও নয়ারহাট বাজারের বালুমহল থেকে বালুর ট্রাক চলাচলের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সময় বেধে দিতে হবে যাতে যানজট না হয়। এটি সকল শ্রেণী পেশার মানুষের সময়ের দাবি হয়ে দাড়িঁয়েছে। এই সময়ে ধামরাইয়ের সুশীলসমাজের গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও সাধারণ জনগণ একাত্তাত প্রকাশ করেন।