ট্রাক চালক ইউনিয়ন পাগলা শাখার সম্পাদক মোঃ জজ মিয়ার উপর হামলা ও অফিস ভাঙ্গচুর করায় প্রতিবাদ সভা

76

■বাংলাদেশ আন্তঃজিলা ট্রাক চালক ইউনিয়ন পাগলা শাখার সম্পাদক মোঃ জজ মিয়ার উপর হামলা ও অফিস ভাঙ্গচুর করায় প্রতিবাদ সভায় সেই হামলা কারীদের প্রতি নিন্দা করে শ্রমিক নেতা কাউছার আহমেদ বলেন:-

আমাকে যে কোনো শ্রমিক ও বাস ট্রাক ড্রাইভার সম্মান দেখাইয়া সলাম দেয়।

আমার শ্রমিক কোনো ভাঙ্গচুর করতে পারে না, এগুলো এক চক্র গ্রুপ আছে ওরা করে, এবং কিছু শ্রমিকদের ব্যবহার করে আসছে।

যখনি কোনো শ্রমিক আন্দোলন হয়, আমাদের খবর নাই, কোনো অনুমতি নাই ওরা জ্বালাও পোড়াও করে, ওরা আসলে কারা তা প্রমাণ হয়ে গেছে।

১০ অক্টোবর মঙ্গলবার, কাজী খোরশেদ প্লাজার পাগলা বাজার সংলগ্ন বাংলাদেশ আন্তঃ জিলা ট্রাক চালাক ইউনিয়ন পাগলা শাখার সদস্যবৃন্দ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন।

■ তিনি হামলাকারীদের লক্ষ্যকরে বলেন:-

ওরা নিজের ব্যবসায়ী ধান্ধা করে নিজেদের স্বার্থে জন্যে উসকানিমূলক দৃষ্টান্ত চিত্র দেখিয়েছে।

আমরা মামলা করেছি ওদের নামে, ওরা কারা? ওরা বাহিরের লোক বহিরাগত , এরা বিশেষ মহলের লোক।

■তিনি প্রমাণ স্বরুপ বলেন:-

আমাদের কাছে সিসি ক্যামেরার ভিডিওচিত্র তা ধরা পড়েছে, আমরা যদি এখন হুকুম দেই আপনারা এই প্রতিশোধ নিতে পারবে।

অনেক খেলছেন, সাবধান আমরা ইনশাআল্লাহ ছাড় দিবো না, শুধু তাইনা বড় মিয়ারও ব্যবস্থা নেয়া বলে।

আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন করতে পারেন নাই, থামাইয়া দিয়েছেন।

আর সিসি ক্যামেরায় আপনাদের লোক দেখা দেখা, তিনি বলেন”-

আমি বলেছি পুলিশ দেন, আপনারা প্রশাসন দেন নাই। আর এই ব্যর্থতা আপনাদের ও দিতে হবে।

আগামীতে এই শ্রমিকদের দাবি আদায় পূর্বে যেমন করছি, শ্রমিকের ন্যায্য অধিকারে সামনেও করবো।

উস্কানিদাতাদের কোনো ছাড় দেয়া হবেনা বলে সাবধান করে দেন।
তিনি বলেন আগামী পরশু আমরা মিটিং করবো?

আর যদি সেই হামলাকারীদের গ্রেফতার এর দাবী জানান এবং যদি বিচার না করা হয় কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে হুশিয়ারি জানান।

প্রতিবাদ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃবাবুল হোসেন, কার্যকরী সভাপতি পাগলা শাখা। জজ মিয়া সাধারণ সম্পাদক।

নাসির উদ্দিন কেন্দ্রীয় আন্তঃ জিলা কমিটি,
ফিরুজ মিয়া যুগ্ন সম্পাদক বাংলাদেশ আন্তঃ ট্রাক চালাক ইউনিয়ন।

দেলোয়ার হোসেন শ্যামপুর শাখা আন্তঃজিলার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।
হাজী আবুল হোসেন লায়েন্স সেক্রেটারি, বশির আহমেদ সাংগঠনিক সম্পাদক পাগলা।

ওবায়েদ সহ সাংগঠনিক সম্পাদক পাগলা। মোবারক হোসেন সদস্য বাংলাদেশ আন্তঃ জিলা কেন্দ্রীয় কমিটি। নুরুল ইসলাম, হারুন প্রভৃতি।